ইসলামে যাকাত দেয়া কতোটা গুরুত্বপূর্ণ

আজমল সাহেব আমাদের এলাকার একজন প্রভাবশালী লোক। তার প্রচুর ধন-সম্পদ থাকার পরেও সে কখনোই কাউকে যাকাত দেননা। অথচ, আমাদের ইসলাম ধর্মে ৫ টি মূল স্তম্ভের মধ্যে যাকাত হলো অন্যতম।

যাকাত কাকে বলে

যাকাত শব্দের অর্থ কি?

যাকাত একটি আরবী শব্দ। যার অর্থ হলো পবিত্রতা, বৃদ্ধি, বরকত পাওয়া ইত্যাদি।

আরো পড়ুনঃ সিয়াম শব্দের ইসলামিক অর্থ কি?

যাকাত শব্দের অর্থ কি?

যাকাত কাকে বলে?

ইসলামি শরিয়তের দৃষ্টিতে কোন মুসলিম নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হলে বছরান্তে তার সম্পদের শতকরা ২.৫০ হারে নির্দিষ্ট খাতে ব্যয় করাকে যাকাত বলে৷ নিসাব মানে হল ন্যূনতম সম্পদ যা থাকলে যাকাত ফরজ হয়৷ যাকাত দেয়ার মাধ্যমে ধনী এবং গরীবের মাঝে এক ধরনের সেতুবন্ধন তৈরী হয়। যাকাতের মানে এই নয় যে ধনীরা গরীবদের উপর দয়া করছে বরং এটা গরীবের অধিকার।

যাকাত কাকে বলে

যাকাতের গুরুত্ব কি?

যাকাতের গুরুত্ব এতোই যে মহান আল্লাহপাক পবিত্র কুরান মাজীদের অসংখ্যবার যাকাতের কথা উল্লেখ করেছেন। আর যাকাত হলো ইসলামের ৫ টি স্তম্ভের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে। তাই যারা সামর্থ্যবান, সচ্ছল, হালাল সম্পদের অধিকারী তারা অবশ্যই গরীবদের কে অনুগ্রহ না করে যাকাত প্রদান করবেন। এতে করে আল্লাহপাক তাকে খুশি হয়ে আরো বরকত দান করবেন।

আরো পড়ুনঃমাথা ব্যথা থেকে মুক্তির কার্যকরী দোয়াসমূহ

যাকাত প্রদানের মূল ৮ টি খাত কি কি?
যাকাত প্রদানের মূল ৮ টি খাত কি কি?
যাকাত প্রদানের মূল ৮ টি খাত কি কি?

যাকাত প্রদানের মূল ৮ টি খাত কি কি?

আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কুরআন মাজীদে যাকাত প্রদানের ৮টি খাতের কথা উল্লেখ করেছেন।

১। ফকির

২। মিসকিন

৩। যাকাত আদায়কারী অথবা প্রতিষ্ঠান

৪। ইসলামের প্রতি আকর্ষিত করার জন্য কোন অমুসলিমকে যাকাত দেয়া 

৫। দাস মুক্তির জন্য যাকাত প্রদান

৬। ঋণগ্রস্ত ব্যক্তিকে যাকাত প্রদান

৭। আল্লাহর রাস্তায় জেহাদকারী ব্যক্তিকে যাকাত প্রদান

৮। মুসাফির ব্যক্তিকে যাকাত প্রদান

যাকাত কাকে বলে

কত টাকা থাকলে যাকাত ফরজ হয়?

যদি কোন ব্যক্তি বর্তমান সোনার দাম অনুযায়ী যাকাত দিতে চায়,  তাহলে তাকে অবশ্যই ৬ লক্ষ টাকার মালিক হতে হবে। অথবা যদি রুপার দাম অনু্সারে যাকাত দিতে চায় তাহলে তাকে ৬০ হাজার টাকার মালিক হতে হবে।

Leave a Comment